মুহাম্মদ খায়রুল বাশারের সেরা ৫টি কবিতা

             শিক্ষা

বাঁচতে শিখো সিংহের মত

লক্ষ্য স্থির কর বাঘের মত 

দলবদ্ধ হও হায়ানার মত

চলতে শিখ চিতার মত 

ভয় পেওনা হরিণের মত

গাইতে শিখো কোকিলের মত

ধৈর্য রাখ কচ্ছপের মত

উপকার কর কাকের মত

অধ্যবসায়ী হও বাবুইর মত

দৃষ্টি রাখ চিলের মত 

আত্ন বিশ্বাসী হও পাখির মত 

পৃথক হয়োনা ভেড়ার মত

খাটতে শিখো গাধার মত

মজা করো বানরের মত 

পরিশ্রমী হও পিঁপড়ার  মত

মানিয়ে চলো আরশোলার মত 

বিশ্বাসী হও কুকুরের মত 

সেবা করো উটের মত 

ছুটে চল ঘোড়ার মত

*******************

      মুক্তি চাই

চলেছি বাকা পথে অবিরত 
করেছি কত গোনাহের কাজ 
ধোকায় পড়ে আজও চাইনি ক্ষমা
ধরিও না সেই দিন 
যে দিন হবে মহাফয়সালা 
দিতে পারবো না, নিজের কর্মের হিসাব 
কর্ম গুনে নিশ্চিত আবধারিত জাহান্নাম
জেনে বুঝেই ভুল করি 
তুমি রহমান,তুমি রহিম
যদি না তুমি করো ক্ষমা 
আমি ধংস হয়ে যাব 
চাই তোমার কাছে মুক্তি

****************
Mohammad Khairul Bashar
মুহাম্মদ খায়রুল বাশার 
Mohammad  Khairul Bashar 


                  ভ্রম


যদিও আমি ইতিহাসের ছাত্র !
আজ আমি আপেক্ষিকতার সুত্রটা বুঝি ।
থমকে গিয়েছিল আমার জীবন, 
কিছুকাল পার হয়ে গেল ক্ষনিকের মধ্যে।
আমার কাঁচা চুল সাদা হয়ে গেছে !
ভাবতে পারছিলাম না কিছুই।
সেটা কি স্বপ্ন ছিল না বাস্তব ,
বুঝতে পারছি না।
মাঝে মাঝে মনে হয় 
ঘুমিয়ে আছি না জেগে 
বুঝতে পারিনা ।
চোখের সামনে ভাসে শুধু
ছিমছাম গঢ়নের সাদা কালো নয়নের 
লাল বেদানার মত চেহারা ,
কি নিষ্পাপ মায়া ভারা মুখ 
হয়তোবা ভালবাসায় পরিপূর্ণ মন
ভালবাসার হাতটি বাড়িয়ে দাও 
বাকি জীবন এমনি করেই ,
করে দিব পার ,তোমায় ভালবেসে

**************

তোমার চোখের দিকে তাকালে
মোমের মতো গলে যাই 
বয়ে চলা হিমবাহের মত 
ও চোঁখে আমি স্বর্গ দেখি 
খুঁজে পাই স্বর্গীয় প্রশান্তি 
হারিয়ে যাই শান্তির রাজ্যে 
তোমার চোঁখের নীলের কাছে 
শরতের আকাশ,মহা সমুদ্রের নীল 
নতজানু হয়ে যায় 
তোমার চোঁখের দিকে তাকিয়ে 
কাটিয়ে দিতে পারব সারা জীবন 
হবনা কখনো ক্লান্ত

********★***★**********

অনুভূতি
হে রূপবতী ,মায়াবিনি 
হবে কি, আমার জীবন সাথী ?
যদি হও...... 
কিনে দিব মাথার তাজ 
আরো দিব নাকের নোলক 
এনে দিব রেশমী চুরি 
পায়ে দিব রূপার নূপুর

হে রূপবতী ,মায়াবিনি 
হবে কি, আমার জীবন সাথী ?
যদি হও...... 
তোমায় নিয়ে মেলায় যাব 
কিনে দিব পুতির মালা 
পেট পুরে ফুসকা খাব 
আরো দেখাব যাত্রাপালা

হে রূপবতী ,মায়াবিনি 
হবে কি, আমার জীবন সাথী ?
যদি হও .........
জ্যেতস্নারাতে চাঁদ দেখাব 
আষাঢ়ের গল্প শুনাব 
নৌকা ভ্রমনে যাব 
ভাওয়ালী গান শুনাব

হে রূপবতী ,মায়াবিনি 
হবে কি, আমার জীবন সাথী ?
যদি হও.........
মাথায় বিলি কেটে দিব 
গা টিপে দিব
ঘুমপারানির গান শুনাব 
মেহেদি পরিয়ে দিব

হে রূপবতী ,মায়াবিনি 
হবে কি, আমার জীবন সাথী ?
যদি হও...
বাদলা দিনে বৃষ্টিতে ভিজব 
সময় পেলে লুডু খেলব 
চাল ভাঁজা খাওয়াব 
নেচে গেয়ে তোকে সারাক্ষন মাতিয়ে রাখব
★********★***********★*******
মানুষ না দেবি 
না আকাশের নীল পরি
না শিল্পীর হাতের  বাস্কর্য 
চোখ দুটি মনে হয় 
ভিঞ্চির তুলির  আঁকা 
গায়ের সুভাস 
শত  গোলাপের সমষ্টি
বদন যেন 
তার পূর্ণিমা শশী 
চল যেন তার 
বৈশাখী কালো মেঘ 
গোধলী লাল 
তার ঠোঁটে 
কন্ঠ যেন তার 
তানসেনের সুর 
তার হাসিতে 
লজ্জা পেয়েছে ব্রজ- বিদ্যুত
******★*********★********
Mohammad Khairul Bashar
মুহাম্মদ খায়রুল বাশার 
Mohammad Khairul Bashar


বেহুশ 

দাড়িয়েছি সালিসি কাঠগড়ায়
আমি নাকি করেছি মাতলামি 
উকিল মজলিসে বলেছে 
আমি নাকি খেয়েছি বলাজুরি  

শরাব-আফিম নাহি চিনি 
বিশ্বাস  করতে নারাজ কাজী 
উকিল বললেন দিতে গুরু দন্ড 
বিচার কার্যে  কাজী সিদ্ধ হস্ত 

কাজী বললেন অন্তিম ইচ্ছা কি 
কি দোষ করেছি  জাহাপনা,আমি নাহি জানি 
তবে যে দোষ ই করিনা কেন ,সম অপরাধে সেও দোষী 
ধমক দিয়ে কাজী বললেন,কি বলতেসিছ আবোলতাবোল 

আমি শুধালাম,পথি মধ্যে সেদিন দেখেছি এক রমণী 
সদা সর্বদা  চোঁখে ভাসে তার বদন খানি 
শরৎ  অম্বরনীলাভ মৃগয়ানেত্র  দেখে 
বেহুশ ছিলাম,আত্ননিয়ন্ত্ৰন  হারিয়ে ফেলেছি 
জানিনা  তখন কি ভুল করেছি
শাস্তি  যাহা দিবেন শির ধার্য।
**************************
কে তুই ?
আমার সব বদলে দিলি,
প্রথম দেখাতেই।

কে তুই ?
আমার পরিকল্পিত জীবনটা,
উদ্দেশ্যহীন করে দিলি।

কে তুই ?
আমার সব সুখ কেঁড়ে নিলি,
মনের অজান্তেই।

কে তুই ?
আমার ঘুম ভেঙ্গে দিলি,
বুঝে ওঠার পূর্বে ।

কে তুই ?
তোকে নিয়ে স্বপ্ন দেখি, 
পৃথিবী সাজানোর ।
তবে
তোর কারণেই, সাদা-মাটা মনে,
সব কিছুই রঙিন অনুভব করি।
*************-*********-**
ভ্রম
যদিও আমি ইতিহাসের ছাত্র !
আজ আমি আপেক্ষিকতার সুত্রটা বুঝি ।
থমকে গিয়েছিল আমার জীবন, 
কিছুকাল পার হয়ে গেল ক্ষনিকের মধ্যে।
আমার কাঁচা চুল সাদা হয়ে গেছে !
ভাবতে পারছিলাম না কিছুই।
সেটা কি স্বপ্ন ছিল না বাস্তব ,
বুঝতে পারছি না।
মাঝে মাঝে মনে হয় 
ঘুমিয়ে আছি না জেগে 
বুঝতে পারিনা ।
চোখের সামনে ভাসে শুধু
ছিমছাম গঢ়নের সাদা কালো নয়নের 
লাল বেদানার মত চেহারা ,
কি নিষ্পাপ মায়া ভারা মুখ 
হয়তোবা ভালবাসায় পরিপূর্ণ মন
ভালবাসার হাতটি বাড়িয়ে দাও 
বাকি জীবন এমনি করেই ,
করে দিব পার ,তোমায় ভালবেসে
*---****************************
কুমিল্লার রস মালাই
টাঙ্গাইলের চমচম  
হার মেনেছে হার মেনেছে  
তোমার মিষ্টি ঠোটের কাছে  


তুর্কি  কমলা
আরবের খেজুর  
হার মেনেছে হার মেনেছে
তোমার শুকনো ঠোটের কাছে

 বিলেতি চেরি
ইরানি বেদানা
 হার মেনেছে হার মেনেছে  
তোমার  টুক টুকে লাল ঠোটের কাছে  

গ্রিসের মাল্টা
জাপানের পার্সিমন  
হার মেনেছে হার মেনেছে  
 রসে ভরা তোমার ঠোটের কাছে

রাশিয়ার আঙ্গুর
জার্মানের স্ট্রবেরি 
 হার মেনেছে হার মেনেছে   
টস টসে রসালোতোমার ঠোটের কাছে
***********************************
সুখ 

তোমায় খুজেছি
পথে প্রান্তরে
পাহাড়ে পাথারে  
জলে স্থলে
বনে মরুতে
মাঠে ঘাটে
আকাশে  পাতালে
কোথাও খুজে পাই নাই
পেয়েছি তোমায় অবশেষে
নীলাভ চোঁখের বালিকার মাঝে
*************------**********
আমি হতে চাই
তোমার প্রয়োজন
বদলা  দিনের  ছাতা
রুদ্র দিনের ছায়া
কবিতা লিখার পাতা

সকালের নাস্তা
দুপুরের ঘুম
টুপ  টুপ  বৃষ্টির শব্দ
মাছ ধরার বড়শি

তোমার স্বপ্ন
তোমার সুখ
তোমার গান
তোমার বন্ধু

যা  হতে চাই না
তোমার হতাশা
তোমার কষ্ট
তোমার ঘৃণা
**************
তোমায় অনুভব করি
মনের গহীন থেকে
নিজের চেয়েও বেশি 
ভালবাসি তোকে
তোর কথা মনে হলে 
আলোর গতিতে ছুটে চলে রক্ত 
অনুভব করি এক অন্যরকম প্রশান্তি
*********************#***********
স্বপ্নের বালিকা 

মানুষ না দেবী 
না,আকাশের নীল পরী 
মায়া মাখা মুখ খানি চোঁখ দুটো হরিণী 
যখন তুমি সামনে থাকো 
ভুলেই সব কিছু 
অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকি 
কমলার কোঁয়ার মত ঠোট দুটি 
ছুয়ে দিতে ইচ্ছে  করে 
জীবন আমার ধন্য হত 
যদি পেতাম তোমার পরশ 
আমি না  নজরুল 
না রবি ঠাকুর 
তাই উপমা দিতে পারিনা তোমার 
লাখো ফুলের মাঝে তুমি লাল ডালিয়া 
শত গোলাপ হার মানে 
তোমার চিকুর ঘ্রানে
*******--*---**********
আমি মুহাম্মদ খায়রুল বাশার। 
মুহাম্মদ খায়রুল বাশার
Mohammad Khairul Bashar 
মুহাম্মদ খায়রুল বাশার 




কোন মন্তব্য নেই

enot-poloskun থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.